শুক্রবার ৫ই মার্চ, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ | ২০শে ফাল্গুন, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ

শিরোনাম
শিরোনাম

করোনায় স্বেচ্ছাসেবক ফারুক আহম্মেদ এর গল্প

  |   বৃহস্পতিবার, ১৬ এপ্রিল ২০২০

করোনায় স্বেচ্ছাসেবক ফারুক আহম্মেদ এর গল্প

দৌলতপুর(কুষ্টিয়া) প্রতিনিধিঃ

স্বেচ্ছাসেবী কাজ বলতে সাধারণত স্বার্থহীন কাজকে বোঝায় যা একজন ব্যক্তি বা গোষ্ঠী কোনো আর্থিক বা সামাজিক লাভের জন্য করে না, “একজন ব্যক্তি বা দল বা সংস্থার সুবিধার্থে করে”। স্বেচ্ছাসেবী কাজ দক্ষতা বিকাশের জন্যও অতি পরিচিত এবং প্রায়ই সৎকর্ম প্রচার অথবা মানুষের জীবনমান উন্নত করার উদ্দেশ্যে করা হয়। অনেক স্বেচ্ছাসেবক তাদের কাজের ক্ষেত্র গুলোতে বিশেষভাবে প্রশিক্ষিত, যেমন চিকিৎসাশাস্ত্র, শিক্ষা বা জরুরি উদ্ধারকার্য। অন্যরা প্রয়োজন অনুযায়ী সেবা প্রদান করে, যেমন একটি প্রাকৃতিক দুর্যোগের প্রতিক্রিয়া হিসাবে।

একজন স্বেচ্ছাসেবক ফারুক আহম্মদ এর কথা । কুষ্টিয়া দৌলতপুর উপজেলার ফিলিপনগর ইউনিয়নের ইসলামপুর গ্রামের মধ্যবিত্ত পরিবারের সন্তান , বাবা টাইটেল পাশ মাওলানা ফকির মোহাম্মদ এলাকাতে তাকে ফকির মৌলভী বলে ডাকতেন ,তার পাঁচ (৫) সন্তানের মধ্যে ফারুক আহম্মেদ সবচেয়ে কনিষ্ঠ । ছোট বেলা থেকেই তিনি এলাকার নানান সেবামূলক কাজের সাথে জড়িত ছিলেন। ১৯৮৬ সালে মেট্রিক পাশ করে কলেজে অধ্যায়ন কাল থেকে সমাজ সেবামূলক কাজে জড়িয়ে পড়ে গভীর ভাবে। পরবর্তীতে চাকুরীর সুবাদে দীর্ঘদিন এলাকার বাইরে থাকলেও বর্তমান দেশের এই ক্রান্তি লগ্নে এলাকার সুশীল সমাজের মানুষের সহায়তায় দেশের কঠিন সময়ে খাদ্য,অর্থ দিয়ে সহযোগীতা করতে না পারলেও সরকারের সচেতনতা মূলক বাণী নিয়ে কর্মহীন দরিদ্রদের পাশে দাঁড়াচ্ছেন। সাধারণ মানুষকে সচেতন করতে সকাল থেকে রাত পর্যন্ত হ্যান্ডমাইক নিয়ে ছুটছেন গ্রাম থেকে গ্রামে।

জানা গেছে, করোনাভাইরাসের চলমান এই সংকটে ওয়াশিম কবিরাজ সহযোগী হয়েছেন নিরন্তন সেবাদান কারী ফারুক আহম্মেদ এর সাথে। দুস্থ মানুষের সেবায় নিবেদিত ওই দু’জন প্রতিদিন করোনাভাইরাস রোধে সরকারের নির্দেশিত বিধিনিষেধ সবাই যাতে মেনে চলেন সেজন্য সাধারণ মানুষকে সচেতন করছেন তাঁরা।
ফারুক আহম্মেদ বলেন, বিগত ২৯ মার্চ থেকে আমরা উপজেলা প্রশাসনের সঙ্গে থেকে করোনাভাইরাস প্রতিরোধে সচেতনতামূলক কার্যক্রমে অংশ নিচ্ছি। করোনাভাইরাস কী, কীভাবে ছড়ায়, লক্ষণগুলো কী- তা স্থানীয়দের জানানোর চেষ্টা করছি।

তিনি আরো বলেন, উপজেলা প্রশাসন সামাজিক দূরত্ব ও হোম কোয়ারেন্টাইন নিশ্চিত করতে দিন-রাত কাজ করে যাচ্ছেন। তাদের সঙ্গে থেকে সকাল থেকে রাত পর্যন্ত সচেতনতামূলক কর্মকান্ডে অংশ নিচ্ছি। প্রশাসনের সহযোগীতা না পেলে হয়ত মহাদুর্যোগের এই সময়ে মানবিকতা নিয়ে কাজ করতে পারতাম না। ওয়াসিম কবিরাজ বলেন, করোনাভাইরাস সংক্রমণ প্রতিরোধে সাধারণ মানুষের আরো বেশি সচেতন হওয়া জরুরি। এই কঠিন সময়ে সরকারের নির্দেশনাগুলো মেনে চলা সবার দায়িত্ব।

তিনি বলেন, আমাদের এমপি মহোদয় আ.কা.ম সরওয়ার জাহান বাদশাহ্ একজন মানবিক গুণসম্পন্ন মানুষ। ওনার কারণেই আমরা মহতি এই কর্মকান্ডে নিজেদের যুক্ত করার সুযোগ পেয়েছি। ওনার কল্যাণেই বাড়ি বাড়ি গিয়ে সকাল থেকে রাত পর্যন্ত সচেতনতামূলক কর্মকান্ডে অংশ নিতে পারছি।

Facebook Comments
advertisement

Posted ৬:০২ পূর্বাহ্ণ | বৃহস্পতিবার, ১৬ এপ্রিল ২০২০

দৈনিক প্রথম দৃষ্টি |

এ বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

আর্কাইভ

শনি রবি সোম মঙ্গল বুধ বৃহ শুক্র
 
১০১১১২
১৩১৪১৫১৬১৭১৮১৯
২০২১২২২৩২৪২৫২৬
২৭২৮২৯৩০৩১  
প্রকাশক
মাসুদ করিম সিদ্দিকী
ব্যবস্থাপনা সম্পাদক
মিজানুর রহমান সিদ্দিকী রঞ্জু
সম্পাদক
এস কে দোয়েল
প্রধান প্রতিবেদক
আব্দুল্লাহ আল মাহাদী
অফিস ব্যবস্থাপনা
নিসা আলী
সম্পাদকীয় কার্যালয়
৫/সি, আফতাবনগর মেইন রোড, রামপুরা, ঢাকা।
আঞ্চলিক প্রধান কার্যালয়
চৌরাস্তা বাজার, তেঁতুলিয়া, পঞ্চগড়
ফোন
+৮৮০১৭৫০-১৪০৯১৯ (সম্পাদক)
+৮৮০১৭১৮-৭৭২৭৪৯ (বার্তা-সম্পাদক)
Email
prothomdristy@gmail.com