বুধবার ১লা ডিসেম্বর, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ | ১৬ই অগ্রহায়ণ, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ

শিরোনাম
শিরোনাম

তেঁতুলিয়ায় দুই স্কুলছাত্রীকে ধর্ষণের অভিযোগে ৩জন আটক

তেঁতুলিয়া (পঞ্চগড়) প্রতিনিধি :   |   বুধবার, ২৫ নভেম্বর ২০২০

তেঁতুলিয়ায় দুই স্কুলছাত্রীকে ধর্ষণের অভিযোগে ৩জন আটক

পঞ্চগড় তেঁতুলিয়ায় প্রেমিকের সাথে ঘুরতে গিয়ে ধর্ষণের শিকার হয়েছে নবম শ্রেণির দুই স্কুল ছাত্রী। ধর্ষণের অভিযোগে বুধবার দুপুরে ওমর ফারুক ইমন (২০), আনোয়ার হোসেন (২৫) ও সোহাগ (২২) নামের তিনজনকে আটক করেছে মডেল থানা পুলিশ। ঘটনাটি ঘটেছে ভজনপুর ইউনিয়নে।

এ বিষয়ে ভুক্তভোগী দুই স্কুল শিক্ষার্থীর পিতা বাদী হয়ে মামলা দাখিল করেছেন। আটককৃত ইমন ভজনপুর ইউনিয়নের কাউর গ্রামের হাফিজ উদ্দিনের পুত্র, আনোয়ার হোসেন একই গ্রামের দারাজ উদ্দিন খুমানোর পুত্র ও সোহাগ বামনপাড়া গ্রামের এনামুল হকের পুত্র।

জানা যায়, গতকাল মঙ্গলবার দুপুরে প্রেমিক ইমনের সাথে প্রেমিকা তার বান্ধবীকে নিয়ে ভজনপুরে যায়। সেখানে বিকেলভর প্রেমিকের সাথে বিভিন্ন স্থানে ঘুরে রাতে ভজনপুর নিজবাড়ী এলাকায় এক বাড়িতে যায়। সেখানে তাদের ধর্ষণ করা হয়। এদিকে পরিবার দুটি তাদের মেয়েকে বাড়িতে না পেয়ে উদ্বিগ্ন হয়ে চারদিকে খোঁজাখুজি করতে থাকেন। রাত ৩টার দিকে জানতে পারেন ভজনপুর এলাকায় হাসুনুরের বাড়িতে হেফাজতে রয়েছে। পরে ভোর ৭টায় গিয়ে সেখান থেকে উদ্ধার করে মামলার করণের লক্ষে মডেল থানায় নিয়ে আসা হয়। এ ঘটনায় পুলিশ খোঁজ খবর নিয়ে প্রথমে আনোয়ার হোসেন ও পরে ইমন ও সোহাগকে আটক করে থানায় নিয়ে আসা হয়।

webnewsdesign.com

ধর্ষণের শিকার দুই শিক্ষার্থীর বাড়ি বুড়াবুড়ি ইউনিয়নের। উভয়ের একজনের পিতা ভ্যান চালক, অন্যজন দিনমজুর। বিকেলে থানায় তাদের সাথে কথা হলে তারা জানান, দুপুরে আমার মেয়ে ভজনপুরে বেড়াতে যায়। সন্ধ্যা গড়িয়ে গেলেও বাড়িতে না ফেরায় দু:শ্চিন্তায় পড়ি। অনেক রাত পর্যন্ত আত্মীয় স্বজনের বাড়িতে হতাশ হয়ে পড়ি। রাত ৩টার দিকে একজনের মোবাইলে জানতে পারি ভজনপুরে এক আত্মীয় বাড়িতে হেফাজতে রয়েছে। পরে জানতে পারি মেয়ে ধর্ষণের শিকার হয়েছে। ধর্ষণের উপযুক্ত বিচার চেয়ে থানায় মামলা করি।

তবে ধর্ষণের অভিযুক্ত আনোয়ার হোসেনের মা আনোয়ারা বেগম বলেন, তার ছেলেকে এ ঘটনায় ফাঁসানো হয়েছে।

এ ব্যাপারে অতিরিক্ত পুলিশ সুপার সুদর্শন রায় সাংবাদিকদের বলেন, সকালে ধর্ষণের অভিযোগ জানার পর বেলা ১১টায় তেঁতুলিয়ায় মডেল থানায় এসে আসামীদের ধরতে জোর পদক্ষেপ নেই। অভিযান চালিয়ে ধর্ষণ ও সহযোগিতার সাথে সম্পৃক্ত ৩জনকে আটক করেছি। বৃহস্পতিবার সকালে তাদের জেল হাজতে প্রেরন করা হবে।

Facebook Comments Box
advertisement

Posted ১১:২৫ পূর্বাহ্ণ | বুধবার, ২৫ নভেম্বর ২০২০

দৈনিক প্রথম দৃষ্টি |

এ বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

এ বিভাগের আরও খবর

আর্কাইভ

শনি রবি সোম মঙ্গল বুধ বৃহ শুক্র
 
১০
১১১২১৩১৪১৫১৬১৭
১৮১৯২০২১২২২৩২৪
২৫২৬২৭২৮২৯৩০৩১
প্রকাশক
মাসুদ করিম সিদ্দিকী
ব্যবস্থাপনা সম্পাদক
মিজানুর রহমান সিদ্দিকী রঞ্জু
সম্পাদক
এস কে দোয়েল
অফিস ব্যবস্থাপনা
নিসা আলী
সম্পাদকীয় কার্যালয়
৫/সি, আফতাবনগর মেইন রোড, রামপুরা, ঢাকা।
আঞ্চলিক প্রধান কার্যালয়
চৌরাস্তা বাজার, তেঁতুলিয়া, পঞ্চগড়
ফোন
+৮৮০১৭৫০-১৪০৯১৯ (সম্পাদক)
+৮৮০১৭১৮-৭৭২৭৪৯ (বার্তা-সম্পাদক)
Email
prothomdristy@gmail.com