মঙ্গলবার ১৮ই মে, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ | ৪ঠা জ্যৈষ্ঠ, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ

শিরোনাম
শিরোনাম

পঞ্চগড়ে বাগান কেটেও উদ্ধার হয়নি বাঘ,আতংকে এলকাবাসী  

  |   রবিবার, ২৩ আগস্ট ২০২০

পঞ্চগড়ে বাগান কেটেও উদ্ধার হয়নি বাঘ,আতংকে এলকাবাসী  

পঞ্চগড় প্রতিনিধিঃ পঞ্চগড়ের সদর উপজেলার সাতমারা ইউনিয়নের মহুরীজোত এলাকায় পরিত্যক্ত  একটি ঘন চা বাগানের ভেতরের একরি চিতা বাঘসহ দুটি বাঘের বাচ্চা ঘুরে বেড়াচ্ছে এমন আতংক ও সংবাদে প্রশাসন ওই পরিত্যক্ত চা বাগানসহ আশপাশের ও জঙ্গলের সকল গাছ কেটে ফেললেও  সেখানে মেলেনি বাঘের অস্তিত্ব কিংবা সন্ধান। ফলে  বাঘ উদ্ধারের অভিযান সমাপ্ত ঘোষণা করেছে প্রশাসন। 
 আজ শনিবার (২২ আগস্ট) বিকেলে পঞ্চগড় সদর উপজেলা নির্বাহী অফিসার আরিফ হোসেন বাঘ উদ্ধার অভিযানের সমাপ্তির বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন। সেসময় বন বিভাগের ও প্রাণিসম্পদ বিভাগের কর্মকর্তা,পুলিশ ও জনপ্রতিনিধিরা উপস্থিত ছিলেন।       

  

প্রশাসন জানায়,গত ৪ দিন আগে মুহরীজোত এলাকার এক কৃষকের গরু বাঘ আক্রমণে মারা যাওয়ার দাবী করলে  খবরটি এলকার মধ্যে ছড়িয়ে পড়ে।  এদিকে প্রশাসন খবর পেয়ে সাথে সাথে প্রয়োজনী ব্যবস্থা করে। তাছাড়া বনবিভাগের বিভাগীয় কর্মকর্তারা পরিদর্শন করে ঢাকা থেকে একটি বন্যপ্রাণী শিকারী দল নিয়ে বাঘ উদ্ধারের জন্য পরিত্যক্ত চা বাগান পরিস্কার ও বাঘ উদ্ধার অভিযান শুরু করে গত শুক্রবার থেকে। পরিত্যক্ত চা বাগানে স্থানীয় প্রায় অর্ধশতাধিক শ্রমিক দিয়ে ওই চা বাগানের উচু গাছ ও আশপাশের জঙ্গল কাটতে শুরু করলে আজ শনিবার বিকেলে বাগানের গাছ কাটা শেষ হলে বাঘের সন্ধান না পাওয়ায় প্রশাসননের পক্ষ থেকে বাঘ উদ্ধার অভিযান বন্ধ ঘোষণা করে।               

 তবে বন বিভাগ ও স্থানীয়দের ধারণা, মানুষের  জনসমাগমে  কারণে বাঘগুলো হয়তো  রাতের আঁধারে চাওয়াই নদী দিয়ে ভারতের সীমান্ত দিয়ে আবারো ফিরে যেতে পারে বা নতুন করে অন্য জায়গায় আশ্রয় নিতে পারে নতুন করে৷  তবে বাঘ  কোথায় পালিয়ে গেলো বা আবার ফিরে আসে যদি আক্রমণ এনিয়ে আতংক ও ভয়ের শেষ নেই স্থানীদের।  
 তবে  গেল বৃহস্পতিবার বিকেলে দিনাজপুর বিভাগীয় বন কর্মকর্তা আব্দুর রহমানের নেতৃত্বে গাজীরপুর বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবু রহমান সাফারি পার্কের ভেটেরেনারি সার্জন হাতেম সাজ্জাদ মো জহুর আমীন, ও ওয়ারলেস স্কাউট আতিকুল ইসলাম প্রথমে আসে পুরো পরিত্যক্ত বাগানে তল্লাশী করে এবং তাদের উপস্থিতিতে বাগান কাটার কাজ আনুষ্ঠানিক ভাবে শুরু হয়।        

এবিষয়ে সাতমেরা ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান আতাউর রহমান জানান,আমরা বৃহস্পতিবার থেকে স্থানীয় শ্রমিকদের মাধ্যমে বাগানের কাজ  কাটা শুরু করলে শনিবার গাছ কাটা শেষ হয় কিন্তু পুরো চা বাগান জুড়ে বাঘের সন্ধান পাওয়া যায়নি৷          এবিষয়ে সদর উপজেলার নির্বাহী অফিসার আরিফ হোসেন জানান, মুহুরীজোত এলাকার মানুষের সন্দেহের কারণে প্রশাসনের উদ্যােগে বাগানের গাছ কাটা ও জঙ্গল পরিষ্কার করা হলে শনিবার বিকেলে বাগানের গাছ পরিস্কার করা হলে আমরা প্রশাসন ও বনবিভাগের কর্মকর্তারা বাগানে বাঘের সন্ধান না পাওয়ায় বাঘ উদ্ধার অভিযান বন্ধ ঘোষণা করেছি। 

webnewsdesign.com
Facebook Comments Box
advertisement

Posted ৪:১৩ পূর্বাহ্ণ | রবিবার, ২৩ আগস্ট ২০২০

দৈনিক প্রথম দৃষ্টি |

এ বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

আহব্বান
আহব্বান

(93 বার পঠিত)

আর্কাইভ

শনি রবি সোম মঙ্গল বুধ বৃহ শুক্র
১০১১১২১৩১৪
১৫১৬১৭১৮১৯২০২১
২২২৩২৪২৫২৬২৭২৮
২৯৩০৩১  
প্রকাশক
মাসুদ করিম সিদ্দিকী
ব্যবস্থাপনা সম্পাদক
মিজানুর রহমান সিদ্দিকী রঞ্জু
সম্পাদক
এস কে দোয়েল
প্রধান প্রতিবেদক
আব্দুল্লাহ আল মাহাদী
অফিস ব্যবস্থাপনা
নিসা আলী
সম্পাদকীয় কার্যালয়
৫/সি, আফতাবনগর মেইন রোড, রামপুরা, ঢাকা।
আঞ্চলিক প্রধান কার্যালয়
চৌরাস্তা বাজার, তেঁতুলিয়া, পঞ্চগড়
ফোন
+৮৮০১৭৫০-১৪০৯১৯ (সম্পাদক)
+৮৮০১৭১৮-৭৭২৭৪৯ (বার্তা-সম্পাদক)
Email
prothomdristy@gmail.com