মঙ্গলবার ২৭শে জুলাই, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ | ১২ই শ্রাবণ, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ

শিরোনাম
শিরোনাম

পঞ্চগড়ে মামলায় জামিন পেয়ে বাড়ি দখল করলেন আসামীরা

  |   রবিবার, ২৯ মার্চ ২০২০

পঞ্চগড়ে মামলায় জামিন পেয়ে বাড়ি দখল করলেন আসামীরা

 

পঞ্চগড় প্রতিনিধি:

পঞ্চগড়ে জামিন পেয়ে বাড়ি দখল,বাদীকে হত্যার হুমকি,তার নিজ বাড়িতে ও এলাকায় ঢুকতে না দেয়া সহ নানা অভিযোগ উঠেছে বসত বাড়ী দখলকারী ইউসুফ আলী গং এর বিরুদ্ধে ।

মামলার এজাহার সূত্রে জানা যায়,গত ২১শে মার্চ (শনিবার) সকালে পঞ্চগড় সদর উপজেলার মাগুড়া ইউনিয়নের আয়মা ঝলই পুড়াডাংগা এলাকায় শহিদুল ইসলামের বসত বাড়ীর ২১ শতক জমির মধ্যে ১৫ শতক জমি নিয়ে সংঘর্ষ হয় একই এলাকার ইউসুফ আলী গং এর সাথে।

webnewsdesign.com

এ সময় আসামীরা বিভিন্ন রকম দেশীয় অস্ত্র দিয়ে বাদী শহিদুল ইসলাম ও তার স্ত্রী সুরাইয়া বেগমের উপর ঝাপিয়ে পড়লে বাদীর স্ত্রী মারাত্মক ভাবে জখম হয়। পরে তাৎক্ষনিক এলাকার লোককজন আহত অবস্থায় সুরাইয়া বেগমকে উদ্ধার করে পঞ্চগড় আধুনিক সদর হাসপাতাল ভর্তি করা হয়।
এসময় বাদীর স্ত্রী সুরাইয়া বেগমের গলায় থাকা ১ টি স্বর্ণের চেইন ছিনিয়ে ও বাড়ির মালামাল লুটপাট করে নিয়ে যায় ইউসুফ আলী গংয়েরা।

পরে গত ২৩শে মার্চ শহীদুল ইসলাম বাদী হয়ে ৬ জনকে আসামী করে পঞ্চগড় সদর থানায় একটি মামলা দায়ের করেন।
এ মামলার আসামীরা হলেন,ইউসুফ আলী (৪৫),শাহজাহান আলী (৪০),আনিসুর রহমান (৩২),আব্দুর রউফ ওরফে গোলাম (২৮),আবুল হোসেন (৩৮), সকলের পিতা মৃত জসির উদ্দীন এবং আশরাফুল ইসলাম (৫০) এর পিতা মৃত নছির উদ্দীন। সকলেরই বাড়ি সদর উপজেলার মাগুড়া ইউনিয়নের আয়মা ঝলই পুড়াডাংগা এলাকায়।

মামলার প্রেক্ষিতে গত শুক্রবার (২৭ মার্চ) সকাল ১০ টায় পঞ্চগড় সদর থানার এসআই মো: রফিকের নেতৃত্বে পুলিশের একটি দল মাগুড়া ইউনিয়নের আয়মা ঝলই পুড়াডাংগা এলাকায় অভিযান চালিয়ে আসামী ইউসুফ আলীকে আটক করে।
ওই দিন দুপুরে পঞ্চগড় সদর থানা পুলিশ আসামী ইউসুফ আলীকে পঞ্চগড় চীফ জুডিশিয়াল আদালতে হাজির করলে সারা বিশ্বে করোনা ভাইরাস সংক্রমণের কারণে আদালত তাকে জামিন দেন।
ইউসুফ আলী জামিন পেয়ে বাড়ি ফিরে অন্য আসামীদের সহায়তায় শহীদুলের পুরো বাড়ী দখল করে নেয় এবং নানা রকম হুমকি-ধামকি দেয়া শুরু করে।
ফলে আসামীদের ভয়ে গরীব-অসহায় শহীদুল ইসলাম বর্তমানে পালিয়ে বেড়াচ্ছেন।

নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক কয়েকজন এলাকাবাসী জানান,শহীদুল ইসলাম দীর্ঘ দিন ধরে ওই এলাকায় বসত বাড়ীতে বসবাস করে আসছেন।
তিনি এই জমি মৃত হাগুড়া মোহাম্মদের স্ত্রী ও পালিত পুত্রের কবলা দলিল দেখে শহিদুল ইসলাম কবলা দলিল মুলে ক্রয় করে দীর্ঘ দিন ধরে বাড়ী বানিয়ে শান্তিপর্ন ভাবে বসবাস করছেন। কিন্তু হঠাৎ করে ইউসুফ আলী গং বংশীয় ভাবে সংখ্যায় অনেক হওয়ার কারনে জোর করে শহীদুলের বসত বাড়ী দখল করে নেয় এবং তাকে তার বাড়ী খেকে বের করে দিয়ে হত্যা সহ নানা রকম হুমকি দিয়ে তাকে এলাকা ছাড়া করছে। যার ফলে শহিদুল ইসলাম নিজের বাড়ি ও এলাকায় এখন ঢুকতে পারছেন না।

মামলার বাদী মোঃ সহিদুল ইসলাম জানান, আমি মুলত এই জমির মালিক। কিন্তু তারা গায়ের জোরে তাদের বলে দাবী করছে। আমি হাগুড়া মোহাম্মদের স্ত্রী ও তার পালিত পুত্র তছির আলীর নিকট থেকে জমি কিনেছি। কিন্তু আসামী পক্ষ গায়ের জোরে আমার বাড়ি-ঘর দখল করে রেখেছে। বর্তমানে আমি খুব অসহায় হয়ে পড়েছি। আমি একজন গরীব অসহায় ব্যাক্তি। আমি কিভাবে তাদের সাথে লড়বো, আমারতো তাদের মত এত বড় লাঠিয়াল বাহিনী ও বড় বংশ নেই। এত টাকা পয়সাও নেই। আমি আমার জমি ফিরে পেতে চাই। আমি সরকারের কাছে এ ঘটনার সুষ্ঠ বিচার চাই এবং জমি দখলবাজদের দৃষ্টান্তমুলক শাস্তি দাবি জানাচ্ছি।

এদিকে জোর পূর্বক জমি দখলকারী আসামী ইউছুফ আলী গং এর সাথে কথা বললে তিনি জানান, এসএ খতিয়ান ১৮৬, যার দাগ নং ১১৭৩ জমির পরিমান ২১শতক জমি অনুযায়ী এই জমি আমাদের বাপ-দাদার পৈতৃক সম্পত্বি। তাই আমরা এই জমিতে বাড়ী বানাচ্ছি।

Facebook Comments Box
advertisement

Posted ১১:২১ পূর্বাহ্ণ | রবিবার, ২৯ মার্চ ২০২০

দৈনিক প্রথম দৃষ্টি |

এ বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

এ বিভাগের আরও খবর

আর্কাইভ

শনি রবি সোম মঙ্গল বুধ বৃহ শুক্র
 
১০১১১২১৩১৪১৫১৬
১৭১৮১৯২০২১২২২৩
২৪২৫২৬২৭২৮২৯৩০
৩১  
প্রকাশক
মাসুদ করিম সিদ্দিকী
ব্যবস্থাপনা সম্পাদক
মিজানুর রহমান সিদ্দিকী রঞ্জু
সম্পাদক
এস কে দোয়েল
প্রধান প্রতিবেদক
আব্দুল্লাহ আল মাহাদী
অফিস ব্যবস্থাপনা
নিসা আলী
সম্পাদকীয় কার্যালয়
৫/সি, আফতাবনগর মেইন রোড, রামপুরা, ঢাকা।
আঞ্চলিক প্রধান কার্যালয়
চৌরাস্তা বাজার, তেঁতুলিয়া, পঞ্চগড়
ফোন
+৮৮০১৭৫০-১৪০৯১৯ (সম্পাদক)
+৮৮০১৭১৮-৭৭২৭৪৯ (বার্তা-সম্পাদক)
Email
prothomdristy@gmail.com