শুক্রবার ২৬শে ফেব্রুয়ারি, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ | ১৩ই ফাল্গুন, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ

শিরোনাম
শিরোনাম

ব্যতিক্রম শুধুই সাংবাদিকরা

শামীমুল হক   |   শনিবার, ১৪ নভেম্বর ২০২০

ব্যতিক্রম শুধুই সাংবাদিকরা

ডাক্তারের কাছে যান আপনি, ভিজিট নেবে কেউ ৫০০ টাকা। কেউ হাজার টাকা। কেউবা আরো বেশি। উকিলের কাছে যান, সেখানেও পরামর্শ ফি নেয়া হবে। মামলা তো পরের কথা। বাড়ি বানাবেন? ইঞ্জিনিয়ারের কাছে যান ডিজাইন নিয়ে আলোচনা করতে সেখানেও দিতে হবে ফি। আর ডিজাইন করার ফি তো লাখ টাকা। থানায় জিডি করতে যাবেন? সেখানেও দিতে হবে টাকা। অন্য বিষয়গুলো এখানে বাদই দিলাম।

আবার বিজ্ঞাপন দিয়েও অনেক প্রতিষ্ঠান টাকার বিনিময়ে পরামর্শ দেয়। বিদেশে পড়তে যাবেন? কোথায় কীভাবে কি করতে হবে-এ পরামর্শ দিয়ে নিয়ে নেয় হাজার হাজার টাকা। ইদানীং আইটি সেক্টরেও এমন কনসালটেন্সি ফার্ম গড়ে উঠেছে। আর বিশেষ কিছু এনজিও রয়েছে যারা ফি নিয়ে বিভিন্ন পরামর্শ দেয়। একমাত্র সাংবাদিক পেশায় কোনো ফি ছাড়াই অসহায়, নির্যাতিত মানুষের পক্ষে দিনের পর দিন কলম যুদ্ধ চালিয়ে যাচ্ছে সাংবাদিকরা। তারা পরম মমতায় নির্যাতিতদের কথা তুলে ধরেন পাঠকের সামনে। অসহায়দের সহায় হয়ে পাশে দাঁড়ান।

প্রায়ই সাধারণের মুখোমুখি হলে একটি প্রশ্ন শুনতে হয়। তা হলো- এ রিপোর্টটি ছাপাতে কত টাকা লাগবে? আসলে সংবাদপত্র সম্পর্কে না জানার ফলে তারা এ প্রশ্ন ছুড়ে দেন। যখন বলা হয়, রিপোর্ট ছাপাতে টাকা লাগে না তখন তারা অবাকই হন। দেশের বেশির ভাগ মানুষই সংবাদপত্র সম্পর্কে অবগত নন। তারা মনে করেন রিপোর্ট ছাপতে হলে টাকা লাগে। তারা এটা জানেন না, সংবাদপত্র হলো সমাজের দর্পণ। মানে আয়না।

সমাজে যা ঘটছে তা পাঠকের সামনে তুলে ধরাই সংবাদপত্রের কাজ। আর সাংবাদিকরা কোনো ঘটনার তথ্য বের করে আনেন কষ্ট করে। শ্রম আর মেধা দিয়ে রিপোর্ট তৈরি করেন। পাঠকের কাছে একটি রিপোর্ট সুপাঠ্য করে তুলে ধরতে পত্রিকা অফিসে অনেক বিভাগ রয়েছে। যারা রিপোর্ট নিয়ে কাজ করেন। পাঠকের কাছে সেরাটা তুলে ধরার চেষ্টা করেন। এখন প্রশ্ন হলো- সংবাদপত্র উপার্জন করে কীভাবে? এতো সাংবাদিক-কর্মচারীর বেতন দেয় কীভাবে?

সংবাদপত্রের উপার্জনের মাধ্যম হলো বিজ্ঞাপন। পত্রিকায় বিজ্ঞাপন ছাপা হয় ইঞ্চি হিসেবে। সরকারি বিজ্ঞাপন যেমন আছে, তেমনি রয়েছে বেসরকারি বিজ্ঞাপন। আবার পৃষ্ঠা হিসেবে বিজ্ঞাপনের টাকার তারতম্য রয়েছে। প্রথম পৃষ্ঠায় ছাপালে একরকম মূল্য। শেষ পৃষ্ঠায় ছাপালে একরকম মূল্য। ভেতরের পাতায় একরকম মূল্য। রঙিন পাতায় একরকম মূল্য, সাদাকালো পাতায় একরকম মূল্য। রাজধানী থেকে প্রকাশিত প্রথম সারির পত্রিকাগুলো বিজ্ঞাপনের মাধ্যমে লাখ লাখ টাকা আয় করছে। যা দিয়ে সাংবাদিক-কর্মচারীদের বেতন-ভাতা দিচ্ছে। আবার অন্যসব খরচ মেটাচ্ছে।

Facebook Comments
advertisement

Posted ১:০৩ অপরাহ্ণ | শনিবার, ১৪ নভেম্বর ২০২০

দৈনিক প্রথম দৃষ্টি |

এ বিভাগের আরও খবর

আর্কাইভ

শনি রবি সোম মঙ্গল বুধ বৃহ শুক্র
 
১০১১১২
১৩১৪১৫১৬১৭১৮১৯
২০২১২২২৩২৪২৫২৬
২৭২৮  
প্রকাশক
মাসুদ করিম সিদ্দিকী
ব্যবস্থাপনা সম্পাদক
মিজানুর রহমান সিদ্দিকী রঞ্জু
সম্পাদক
এস কে দোয়েল
প্রধান প্রতিবেদক
আব্দুল্লাহ আল মাহাদী
অফিস ব্যবস্থাপনা
নিসা আলী
সম্পাদকীয় কার্যালয়
৫/সি, আফতাবনগর মেইন রোড, রামপুরা, ঢাকা।
আঞ্চলিক প্রধান কার্যালয়
চৌরাস্তা বাজার, তেঁতুলিয়া, পঞ্চগড়
ফোন
+৮৮০১৭৫০-১৪০৯১৯ (সম্পাদক)
+৮৮০১৭১৮-৭৭২৭৪৯ (বার্তা-সম্পাদক)
Email
prothomdristy@gmail.com