রবিবার ১লা আগস্ট, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ | ১৭ই শ্রাবণ, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ

শিরোনাম
শিরোনাম

লকডাউনে পরিবহন শ্রমিকদের মানবেতর জীবনযাপন

নিজস্ব প্রতিবেদক   |   শুক্রবার, ৩০ এপ্রিল ২০২১

লকডাউনে পরিবহন শ্রমিকদের মানবেতর জীবনযাপন

লকডাউনে এভাবেই স্থবির হয়ে রয়েছে গণপরিবহন

বৈশ্বিক করোনা বিস্তাররোধে দীর্ঘ সময় লকডাউনে গণপরিবহন বন্ধ থাকার পর, সীমিত পরিসরে স্বাস্থ্যবিধি মেনে গণপরিবহন চালুর কয়েক মাসের মাথায় করোনার দ্বিতীয় ঢেউ মোকাবিলায় পুনরায় লকডাউনে অসহায় মানবেতর জীবন কাটাচ্ছেন পরিবহনের শ্রমিকরা। লকডাউনে না ঘুরছে গাড়ির চাকা, না মিলছে জীবিকা। দিন রুজির মানুষগুলোর দিন কাটছে অর্ধাহার-অনাহারে। এ চিত্র পঞ্চগড়ের তেঁতুলিয়ায়।

এমন কঠিনতম পরিস্থিতিতে অসহায় পরিবহন শ্রমিকরা জীবন বাচাঁতে কামনা করছেন মানবিক ত্রাণ সহায়তা ও নামমাত্র মূল্যে রেশনের। সেই সঙ্গে মালিক, শ্রমিক সংগঠন, ব্যবসায়ী ও শিল্পপতিরা যাতে এসব অসহায় পরিবহন শ্রমিকদের পরিবারের পাশে দাঁড়ান এমনই আকুল আবেদন তাদের।

তবে পরিবহণ মালিকরা জানান, তারা নানাভাবেই সহযোগিতার চেষ্টা করছেন। কিন্তু তা প্রয়োজনের তুলনায় খুবই কম। পরিস্থিতি দীর্ঘ হওয়ায় তা মোকাবেলায় সরকার ও বিত্তবানদের এগিয়ে আসার আহবান তাদের।

webnewsdesign.com

জানা যায়, তেঁতুলিয়ায় গণ পরিবহন রয়েছে ৩০০টি। এসব পরিবহনের শ্রমিক রয়েছে ৭০০ জন। লকডাউনের সময় থেকেই গণপরিবহন বন্ধ থাকায় তারা মানবেতর দিন পার করছেন। কেউ কেউ এ পেশা ছেড়ে যেতে পারছেন না অন্য কোন পেশায়। জমানো টাকা ও ঋণ-ধার করে পরিবারে খাদ্য জোগান দিতে চরম হিমশিম খাচ্ছেন প্রতিনিয়ত। অর্থ সংকটে পড়ে দিশেহারা হয়ে পড়েছেন এসব শ্রমিকরা।

কয়েকজন শ্রমিক জানান, গাড়ির চাকা চলছে না, রুটি-রুজিও মিলছে না। জমানো টাকা যা ছিল তা দিয়ে কোনভাবে দিন পার করেছি। সামনের দিনগুলো কিভাবে পার করবো তা ভেবে কুলকিনারা পাচ্ছি না।

নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক একটি এক বাস চালক বলেন, লোকডাউনে গাড়ি বন্ধ, খুব সমস্যার মধ্যে দিন কাটাচ্ছি। আমাদের তো নির্দিষ্ট বেতন নেই যে, গাড়ি না চললেও মাস শেষে বেতন পাব। দিন-রুজিতে চলা সংসারে এখন থমকে গেছি। জমানো টাকা যা ছিল, তা শেষ। কোন সাহায্য পাচ্ছি না। জানি না কী হবে।

বাস-মিনিবাস, কোচ-মাইক্রোবাস শ্রমিক ইউনিয়নের (রেজি;রাজ-১৬৬০) কয়েকজন সদস্য জানান, দীর্ঘ সময় ধরে চলা লকডাউনের কারণে আমরা দৈন্যদশায় পড়েছি। গাড়ির চাকা ঘুরলেই আমাদের রুজি-রোজগার হয়, সেখানে পরিবহন বন্ধ থাকায় খুবই কষ্টে কেটে যাচ্ছে দিন। কোন সাহায্য সহযোগিতাও পাইনি। দেখারও কেউ নেই। তবে নির্বাহী কর্মকর্তা সোহাগ চন্দ্র সাহা মহোদয় জানালে তিনি আমাদের সহযোগিতা করার আশ্বাস দিয়েছেন।

বিষয়টি নিয়ে উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা সোহাগ চন্দ্র সাহার সাথে কথা বললে তিনি জানান, আমি জানতে পেরে তাদেরকে তালিকা দিতে বলেছি। আশা করছি সরকারিভাবে সহযোগিতা করতে পারবো।

Facebook Comments Box
advertisement

Posted ১:৫৩ পূর্বাহ্ণ | শুক্রবার, ৩০ এপ্রিল ২০২১

দৈনিক প্রথম দৃষ্টি |

এ বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

কবিতা- মৃত্যু
কবিতা- মৃত্যু

(395 বার পঠিত)

এ বিভাগের আরও খবর

আর্কাইভ

শনি রবি সোম মঙ্গল বুধ বৃহ শুক্র
 
১০১১১২১৩১৪১৫১৬
১৭১৮১৯২০২১২২২৩
২৪২৫২৬২৭২৮২৯৩০
৩১  
প্রকাশক
মাসুদ করিম সিদ্দিকী
ব্যবস্থাপনা সম্পাদক
মিজানুর রহমান সিদ্দিকী রঞ্জু
সম্পাদক
এস কে দোয়েল
প্রধান প্রতিবেদক
আব্দুল্লাহ আল মাহাদী
অফিস ব্যবস্থাপনা
নিসা আলী
সম্পাদকীয় কার্যালয়
৫/সি, আফতাবনগর মেইন রোড, রামপুরা, ঢাকা।
আঞ্চলিক প্রধান কার্যালয়
চৌরাস্তা বাজার, তেঁতুলিয়া, পঞ্চগড়
ফোন
+৮৮০১৭৫০-১৪০৯১৯ (সম্পাদক)
+৮৮০১৭১৮-৭৭২৭৪৯ (বার্তা-সম্পাদক)
Email
prothomdristy@gmail.com